Girl in a jacket

ময়মনসিংহে নির্যাতিত গৃহকর্মীকে ফেলে পালানোর সময় স্বামী-স্ত্রী আটক

0

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি।।
নির্যাতিত গৃহকর্মীকে ফেলে কৌশলে পালিয়ে যাওয়ার সময় ব্যাংকার স্বামী স্ত্রীকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে জনতা।  ঘটনাটি ঘটেছে ৬ ফেব্রুয়ারি শনিবার বিকেলে ময়মনসিংহ শহরের পাট গুদাম এলাকায়।
আটককৃতরা হলেন, মিজানুর রহমান ও তার স্ত্রী মুন্নী। মিজানুর রহমানের গ্রামের বাড়ি কিশোরগঞ্জে। সে অগ্রনী ব্যাংকে চাকরী করেন বলে জানা গেছে।
নির্যাতিত গৃহকর্মী নিশি (১১) জেলার নান্দাইল উপজেলার রাজবাড়ি গ্রামের প্রতিবন্ধী মুজিবুর রহমানের মেয়ে।
শনিবার (০৬ ফেব্রুয়ারী) রাতে ভিক্টিম শিশুর বাবা মুজিবুর রহমান বাদী কোতোয়ালী থানায় মামলা দায়ের করেছেন।
এর আগে ওই দিন বিকালে পাটগুদাম ব্রীজ মোড়ে আহত গৃহকর্মী লিলিকে তার বাবা মুজিবুর রহমানের কাছে বুজিয়ে দিয়ে চলে যাওয়ার সময় স্থানীয়রা আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন।
পুলিশ জানায়, তিন বছর আগে জেলার নান্দাইল উপজেলার রাজাবাড়ী গ্রামের বাসিন্দা প্রতিবন্ধী মজিবুরের ১০ বছরের শিশু কন্যা লিলি ঢাকার ধানমন্ডীতে ব্যাংকার মিজানের বাসায় গৃহকর্মী হিসেবে কাজে যোগদান করে।
টানা তিন বছর আটকে রেখে প্রভাবশালী অগ্রণী ব্যাংক কর্মকর্তা মিজান ও তার স্ত্রী মুন্নী মেয়েটিকে হাতপা বেঁধে লাঠি পেটা, গরম খুন্তি দিয়ে চেকা দেয় এবং গরম পানি ঢেলে সারাদেহ ঝলসে দেয়।
এ বিষয়ে ময়মনসিংহ কোতোয়ালি মডেল থানার এসআই সুব্রত সাহা বলেন, ৯৯৯ কল পাওয়ার পর পুলিশ গিয়ে শিশুকে উদ্ধার করে। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। আটক ব্যাংকার মিজান ও স্ত্রী মুন্নীকে গ্রেফতার দেখানো হবে।
ময়মনসিংহ কোতুয়ালী থানায় তিন জনের নাম উল্লেখ করে মামলা রুজু করা হয়েছে।

Share.

Comments are closed.