Girl in a jacket

ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় জেএমবি’র ৫ সদস্য আটক

0

মো.জাকির হোসেন,ময়মনসিংহ প্রতিনিধি।।

ময়মনসিংহ জেলার মুক্তাগাছা উপজেলায় নিষিদ্ধ ঘোষিত জেএমবির সক্রিয় পাঁচ সদস্যকে  আটক করেছে র‍্যাব-১৪। আটককৃতরা হলেন, মনোয়ার হোসেন ওরফে মাজন, সানোয়ার হোসেন ওরফে সাজন, মোঃ শফিকুল ইসলাম, মোঃ মোস্তফা, আব্দুস সামাদ। এ সময় তাদের  হেফাজত থেকে বিপুল পরিমান উগ্রবাদী বই, লিফলেট এবং  বিভিন্ন উগ্রবাদী ভিডিওসহ ৩ টি মোবাইল উদ্ধার করা হয়।
 এক বিজ্ঞপ্তিতে জানা যায়,র‌্যাব-১৪ এর সিপিএসসি এর একটি  দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারেন যে, ময়মনসিংহ জেলার মুক্তাগাছা থানাধীন নালীখালী গ্রামের জনৈক আনাম এর বাড়িতে কতিপয় নিষিদ্ধ ঘোষিত জেএমবি’র সদস্যগণ একত্রিত হয়ে নাশকতা করার উদ্দেশ্যে গোপন বৈঠক করছে। উক্ত গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-১৪, সিপিএসসি এর আভিযানিক দল গত ৩১ মে ভোররাত  ৩.৪০ ঘটিকার সময়  ঘটনাস্থলে পৌঁছলে র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে দৌড়ে পালানোর সময় নটাকুড়ি এলাকার চাঁন মাহমুদ এর পুত্র আসামী  মনোয়ার হোসেন ওরফে মাজন (২৪) এবং সানোয়ার হোসেন ওরফে সাজন (২৪), মোঃ সৈয়দ আলীর  পুত্র মো.শফিকুল ইসলাম (৪৩), মোঃ জালাল উদ্দিন এর পুত্র মোঃ মোস্তফা (৩০) এবং গোয়ালিয়াবাড়ী এলাকার মৃত শাহাদ আলীর পুত্র আব্দুস সামাদ (৪০) কে আটক করা হয়। তাদের হেফাজত থেকে বিপুল পরিমান উগ্রবাদী বই ও লিফলেট এবং বিভিন্ন উগ্রবাদী ভিডিওসহ ০৩ টি মোবাইল উদ্ধার করা হয়।
আসামীরা সকলে জেলার মুক্তাগাছা থানার বাসিন্দা।


বিজ্ঞপ্তিতে আরো জানান, গ্রেফতারকৃত আসামীদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ ও অনুসন্ধানে জানা যায় যে, দীর্ঘদিন যাবৎ তারা বিভিন্ন ইসলামি মুফতি যেমন জামিলুদ্দীন, জসীমুদ্দীন রাহমানীসহ প্রভৃতি বক্তার বয়ান শুনত এবং এইসব শুনে তারা উগ্রবাদের প্রতি উদ্ভুদ্ধ হয় ও জেএমবি এর সমর্থক এবং সক্রিয় সদস্য হয়ে উঠে। উল্লেখিত আসামীগণ নিজেদেরকে জেএমবি এর সক্রিয় সদস্য হিসাবে পরিচয় দেয়। আসামীগণ নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠনের জন্য বিভিন্ন কৌশলে কাজ করত এবং সংগঠনের জন্য নিয়মিত চাঁদা (ইয়ানত) উত্তোলন করে সংগঠনের তহবিল সংগ্রহে ভূমিকা রাখত। এ ছাড়াও সংগঠনের সক্রিয় সদস্য হিসেবে তাদের যেকোন নাশকতামূলক কর্মকান্ডের পরিকল্পনা ছিল । উপরোক্ত ঘটনা সংক্রান্তে গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে ময়মনসিংহ জেলার মুক্তাগাছা থানায় মামলা দায়েরের কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।

Share.

Comments are closed.