Girl in a jacket

ভালুকায় সেনা বাহিনীতে চাকরি দেয়ার নামে তিন যুবকের সাথে প্রতারণা : গ্রেফতার ১

0

স্টাফ রিপোর্টার, দিগন্তবার্তা:-

ময়মনসিংহের ভালুকায় সেনা বাহিনীতে চাকরি দেয়ার নামে তিন যুবকের সাথে প্রতারণা করে মোটা অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে মোঃ সোহেল মিয়া (৪৫) নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে মডেল থানা পুলিশ। মোঃ সোহেল মিয়া সখীপুর উপজেলার চতলবাইত গ্রামের মোঃ লেবু মিয়ার ছেলে।থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সখীপুরের চতলবাইত গ্রামের মোঃ সোহেল মিয়া ভালুকা উপজেলার কাচিনা ইউনিয়নের গিলারচালা গ্রামের মোঃ দুলাল মিয়া পরষ্পর শ্যালক-ভগ্নিপতি। আত্মীয়তার সুবাদে দুলাল মিয়ার বাড়িতে মো. সোহেল মিয়ার যাতায়ত করতেন। আর সে সুযোগে একই গ্রামের মোতাহার হেসেনের ছেলে মোঃ শামীম ইসলামসহ অন্যান্যদের সাথে তার পরিচয় হয়। এর ফলে শামীম ইসলামসহ অন্যান্যরা জানতে পারেন, মোঃ সোহেল মিয়া জনপ্রতি নয় লাখ টাকার বিনিময়ে সেনা বাহিনীর সৈনিক পদে চাকরি দেন। পরে মোঃ সোহেল মিয়ার ভগ্নিপতি মোঃ দুলাল মিয়া বিষয়টি নিশ্চিত করলে শামীম ইসলামসহ একই উপজেলার পালগাঁও গ্রামের রুবেল (রোবেলট) মিয়া ও কুল্লাব গ্রামের মোঃ রিয়াজ মিয়া চাকরির জন্যে সোহেল মিয়াকে বিভিন্ন সময়ে নগদে দশ লাখ এবং চেকের মাধ্যমে আরো একলাখ টাকা প্রদান করেন। পরে মোঃ সোহেল মিয়া ওই তিনজনকেই সেনা সদর দপ্তর ঢাকার মনোগ্রাম যুক্ত তিনটি নিয়োগপত্র প্রদান করেন। নিয়োগপত্র পাওয়ার পর জানা গেলো তাদেরকে দেয়া মোঃ সোহেল মিয়ার নিয়েগপত্র তিনটি ভূয়া। পরে ওই ঘটনায় শামীম ইসলাম বাদি হয়ে ৫ অক্টোবর সোমবার রাতে ভালুকা মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলায় পরপরই তদন্তকারী কর্মকর্তা ভালুকা মডেল থানার এসআই রুহুল আমীন অভিযান চালিয়ে সখীপুর বাজার থেকে সোহেল মিয়াকে গ্রেফতার করেন। পরে পাঁচ দিনের রিমান্ড চেয়ে ৬ অক্টোবর মঙ্গলবার তাকে আদালতে পাঠানো হয়।

ভালুকা মেডল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ মাইন উদ্দিন জানান, প্রতারনার দায়ে গ্রেফতারকৃত আসামীকে পাঁচ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে। অপর আসামীকে গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

Share.

Comments are closed.