Girl in a jacket

ভালুকায় মিথ্যে মামলার প্রতিবাদে এক প্রবাসীর স্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন

0

স্টাফ রিপোর্টার, দিগন্তবার্তা:-

ময়মনসিংহের ভালুকায় চাচা শ্বশুরের কুপ্রস্তাব ও মিথ্যে মামলার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছেন হাসিনা খাতুন নামে এক প্রবাসীর স্ত্রী। শুক্রবার বিকেলে ভালুকা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের কক্ষে সংবাদ সম্মেলনটি অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে প্রবাসীর স্ত্রী হাসিনা খাতুন বলেন, তার স্বামী উপজেলার চামিয়াদী গ্রামের জাহাঙ্গীর আলম দীর্ঘ ১৫/১৬ বছর ধরে দুবাই আছেন। স্বামী বিদেশ যাওয়ার পর থেকে সন্তানদের নিয়ে স্বামীর বাড়িতেই অবস্থান করছিলেন। তার চাচা শ্বশুর আব্দুল মোতালেব (৪০) তাকে বিভিন্ন সময় কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিলো। ২৯ অক্টোবর সন্ধায় আমার ঘরে ডুকে একা পেয়ে ঝাপটে ধরে এবং ধ্বস্তা ধ্বস্তি করে। এসময় আমি ডাকাডাকি শুরু করলে, আশপাশের লোকজন আসার টের পেয়ে তার ছিড়া গেঞ্জি রেখেই পালিয়ে যায়। পরদিন ৩০ অক্টোবর সকাল ১০ টার দিকে চাচা শ্বশুর আবার আমার ঘরে একা পেয়ে আমাকে কুপ্রস্তাব দিয়ে ধ্বস্তা ধ্বস্তি করতে চাইলে আমি আমার সম্ভ্রম রক্ষা করতে তার মুখে মরিচের গুড়া ছুড়ে মারি। এসময় সে মাটিতে পড়ে গিয়ে চেচামেচি শুরু কলে মোতালেবের লোকজন এসে আমার বাড়িত হামলা ও ভাঙচুর করে। এসময় ৯৯৯ নম্বরে ফোন দিলে পরিস্থিতি শান্ত করে। পরে উল্টো আমার বিরুদ্ধে থানায় মিথ্যে মামলা দিয়ে হয়রানী করছেন। তিনি বলেন, ওই মিথ্যে মামলার কারনে আমি বেশ কিছুদিন পালিয়ে থাকা অবস্থায় আদালত থেকে জামিনে এসে ১৩ নভেম্বর চাচা শ্বশুর মোতালেব, নজরুল ইসলাম, কামাল মিয়া, জামাল হোসেন, শাহ জালাল, আব্দুল বারেক, ইদ্রিস আলী, আব্দুল কুদ্দুস, নুর জাহান, নুর নাহার ও হেলাল উদ্দিনকে বিবাদী করে ভালুকা মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করি। অভিযোগ দেয়ার পর বিবাদীরা তাকে হত্যাসহ বিভিন্ন ধরণের হুমকী দিয়ে আসছেন এবং স্বামীর বাড়িতে উঠতে দিচ্ছেন না। তিনি এখন জীবনের নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছেন এবং বাড়ি ছেড়ে বিভিন্ন স্থানে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন বলে সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখ করেন। এ সময় হাসিনা খাতুনের দুই সন্তান, তার বাবা মজিবর রহমান ও স্থাণীয় বেশ কয়েকজন ব্যক্তিসহ বিভিন্ন মিডিয়াকর্মী উপস্থিত ছিলেন।
ভালুকা মডেল থানার এসআই রঞ্জন কুমার ভৌমিক জানান, লিখিত অভিযোগ পাওয়ার পর ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেছি এবং এ ব্যাপারে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

Share.

Comments are closed.