Girl in a jacket

ভালুকায় প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে জোড়পূর্বক বাঁশঝাড় কেটে নেয়ার অভিযোগ

0

স্টাফ রিপোর্টার, দিগন্তবার্তাঃ-

ময়মনসিংহের ভালুকায় প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে বিরোধপূর্ণ জমি থেকে দিনদুপুরে জোড়পূর্বক প্রায় ৫০ হাজার টাকার বাঁশঝাড় কেটে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে ১০ নভেম্বর মঙ্গলবার সকালে উপজেলার উথুরা ইউনিয়নের ধূলিকুড়ি গ্রামের সিড়িজতলা পাড়ায়। এ ঘটনায় মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেছেন।
ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উথুরা ইউনিয়নের ধূলিকুড়ি গ্রামের সিড়িজতলা পাড়ায় শ্রী সোহাগ রবি দাসগং (কালুয়া) এর সাথে রুপচান রবি দাস গংয়ের ধুলিকুড়ি মৌজার ৩০৬ নম্বর দাগে ৫৪ শতাংশ জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিলো। ঘটনারদিন মঙ্গলবার সকালে প্রতিপক্ষ রুপচান রবি দাস, মানিক রবি দাস, ফুলচান রবি দাস, দীলিপ রবি দাস, নিমাই রবি দাস, নিতাই রবি দাস, রঞ্জিত রবি দাস ও প্রদীপ রবি দাসসহ কতিপয় লোকজন পূর্ব পরিকল্পিতভাবে দা, লাঠি, রড, করাত, কুড়ালসহ দেশিয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে সোহাগ রবি দাসগং (কালুয়া) এর জমিতে রোপনকৃত বেশ কয়েকটি বাঁশঝাড়ের প্রায় ৫০ হাজার টাকা মূল্যের বাশ কেটে নিয়ে যায়। খবর পেয়ে ভালুকা মডেল থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে বাঁশ কাটতে নিষেধ করে কর্তৃণকৃত বাঁশগুলো সড়াতে নিষেধ করে আসে।
জমির মালিক শ্রী সোহাগ রবি দাস গং (কালুয়া) জানান, তাদের ক্রয়কৃত জমিতে বাঁশঝাড়সহ বিভিন্ন প্রজাতীয় গাছ রোপন করে ৫৪ শতাংশ জমি প্রায় ৩৫/৪০ বছর ধরে ভোগ দখলে আছেন। প্রতিপক্ষ রুপচান রবি দাস ও রঞ্জিত রবি দাস গং বিভিন্ন সময়ে তাদের জমি থেকে জোড়পূর্বক গাছপালা কেটে নিয়ে যায়। এ সব ঘটনায় আগে ভালুকা মডেল থানায় সাধারণ ডায়েরী নম্বর-১১১৮,তারিখ-২৬,০৭,২০) করা হয়েছিলো।

মঙ্গলবার সকালে রুপচান রবি দাসের নেতৃত্বে দেশিয় অস্ত্রসস্ত্রসহ একদল লোক তাদের রোপনকৃত বাঁশঝাড় কেটে নেয়। এসময় বাঁধা দিতে গেলে আমাকে ও আমার স্ত্রী চম্পা রানী ভাই কালাচানকে মারধর করে সমুদয় বাশঝাড় কেটে নিয়ে প্রায় ৫০ হাজার টাকায় ক্ষতি সাদন করে। তাছাড়া প্রতিপক্ষরা উথুরা বাজারের পাশে তাদের বাসায় গিয়ে হামলা চালিয়ে টিনের বেড়া ভাঙচুর করে। সোহাগ রবি দাস আরো জানান, প্রতিপক্ষরা এখন তাদের পরিবারের সদস্যদের হত্যাসহ বিভিন্ন ধরেণের হুমকী দিয়ে আসছে এবং তারা জীবনের নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছেন। এ ঘটনায় সোহাগ রবি দাস বাদি হয়ে ভালুকা মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।
এ ব্যাপারে বহু চেষ্টা করেও রুপচান রবি দাস গং দের সাথে যোগাযোগ বা কথা বলা সম্ভব হয়নি। বাড়িতে গিয়ে অনেক ডাকাডাকির পরও তাদের সাড়া পাওয়া যায়নি। তবে রঞ্জিত রবি দাসের সাথে মোবাইলে কথা বললে তিনি এ ঘটনার সাথে জড়িত নয় বলে জানান। তিনি বলেন, ঘটনার খবর পেয়ে ভালুকা থানার অফিসার জহিরুল স্যার আসলে, আমি উনাকে নিয়ে ঘটনাস্থলে যাই।
ভালুকা মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ মাইনউদ্দিন জানান, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেছেন। লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Share.

Comments are closed.