Girl in a jacket

পরিবার ও পরিকল্পণাকর্মীদেরও করোনা ঝুঁকিভাতা প্রণোদনা দেয়া উচিত ………..গৃৃহায়ণ ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী

0

নিজস্ব প্রতিবেদক, ময়মনসিংহ :
মহামারি করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় স্বাস্থ্যকর্মীদের পাশাপাশি পরিবার ও পরিকল্পণা (প.প) বিভাগের কর্মকর্তা ও কর্মচারিরাও মাঠপর্যায়ে ঝুঁকি নিয়ে নারী এবং কিশোরীদের চিকিৎসা, টিকাদানসহ স্বাস্থ্যসেবায় রুটিন কাজ করে যাচ্ছেন। ইতিমধ্যেই কর্মক্ষেত্রে করোনায় বেশ কয়েকজন আক্রান্ত হয়েছেন। তাই স্বাস্থ্যকর্মীদের মতো প.প. কর্মকর্তা ও কর্মচারিদেরও ঝুঁকিভাতা প্রণোদনা দেয়া উচিত বলে মন্তব্য করেছেন গৃৃহায়ন ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ এমপি ।

বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস উদযাপনে শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় পরিবার পরিকল্পণা (প.প.) ময়মনসিংহ বিভাগীয় পরিচালকের কার্যালয় আয়োজিত ভার্চুয়াল আলোচনা সভা ও পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে গৃৃহায়ন ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ এমপি এসব কথা বলেন।
ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ইকরামুল হক টিটু বলেন, দেশের অর্ধেক জনসংখ্যা নারীদের স্বাবলম্বী করে গড়ে তোলার লক্ষ্যে নানান সুযোগ-সুবিধা প্রদানসহ শিক্ষা স্বাস্থ্য পুষ্টি ও নিরাপদ পরিবেশ সৃষ্টির মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নারীর ক্ষমতায়ন নিশ্চিত করেছেন।

পরিবার পরিকল্পণা ময়মনসিংহ বিভাগীয় পরিচালক (যুগ্ম-সচিব) মোহাম্মদ আবদুল আওয়ালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ইকরামুল হক টিটু, বিভাগীয় কমিশনার মোঃ কামরুল হাসান এনডিসি, রেঞ্জ ডিআইজি ব্যারিস্টার মোঃ হারুন অর-রশিদ বিপিএম, পরিচালক স্বাস্থ্য ডাঃ মোঃ আবুল কাশেম, জেলা প্রশাসক মোঃ মিজানুর রহমান, সিভিল সার্জন ডাঃ এ বি এম মসিউল আলম, প.প. ময়মনসিংহের উপ-পরিচালক আবু তাহা মোঃ এনামুর রহমান, সিভিল সার্জন ডাঃ এবিএম মসিউল আলম, ময়মনসিংহ বিভাগীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মো. নজরুল ইসলাম ও ময়মনসিংহ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক অমিত রায়।

দরিদ্রতা, অশিক্ষা, অনগ্রসরতা, কুসংস্কারের বেড়াজাল থেকে বেরিয়ে একটি সুস্থ্য নারী জাতি গঠনে বাল্যবিয়ে ও কিশোরী মাতৃত্ব রোধ করতে হবে। বাল্যবিয়ে মুক্ত ময়মনসিংহ বিভাগ বিভাগ ঘোষণার সফল বাস্তবায়নে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী- শিক্ষক অভিভাবক, জনপ্রতিনিধি, স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পণা বিভাগ, নিকাহ রেজিষ্ট্রার (কাজী), ইমাম, সাংবাদিকসহ সকলস্তরের লোকজনকে আন্তরিকভাবে এগিয়ে আসার আহবান জানিয়েছেন ময়মনসিংহের বিভাগীয় কমিশনার মোঃ কামরুল হাসান এনডিসি।

ময়মনসিংহ বিভাগীয় পরিচালক (যুগ্ম-সচিব) মোহাম্মদ আবদুল আওয়াল বলেন পরিবার পরিকল্পণা অধিদপ্তরের আগামীদিনে আমাদের অগ্রাধিকার কর্মসূচীগুলো হচ্ছে- বাল্যবিয়ে রোধ, ১৮ বছর বয়সের আগে মেয়েরা যাতে মা না হতে পারেন তার জন্য কাজ করা, বর্তমান মোট প্রজনন হার ২.৩ হতে ২০২১ সালের মধ্যে ২ এ হ্রাস করা। পরিবার পরিকল্পনা পদ্ধতি ব্যবহারকারীর সংখ্যা ৬৩% থেকে ২০২১ সালের মধ্যে ৭৫% এ উন্নীত করা। অপূর্ণ চাহদিার হার ১০% থেকে ২০২১ সালের মধ্যে ৯% হ্রাস করা। কিশোরী মাতৃত্ব হার হ্রাস করা। প্রাতিষ্ঠানিক প্রসব সেবার হার ৩৯% থেকে ৫০% এ উন্নীত করা।

Share.

Comments are closed.