Girl in a jacket

জুড়ীতে জমি দখল নিয়ে প্রতিপক্ষের হামলায় মা ও ছেলেসহ একই পরিবারের আহত ৩

0

মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধিঃ

মৌলভীবাজারের জুড়ীতে জমি দখল নিয়ে দুপক্ষের সংঘর্ষে মহিলাসহ একই পরিবারের মা,ছেলে ও ছেলের বউ মারাত্মক আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।জানা গেছে গত রবিবার (২১/মার্চ/২০২১ ইং) সকাল আনুমানিক ১০ ঘঠিকায়  ঘঠনাটি ঘঠেছে
জুড়ী উপজেলার  জায়ফরনগর ইউনিয়নের  কালিনগর গ্রামে। 

ঐ ঘঠনায় আহত কালিনগর গ্রামের মৃত রইছ আলী মিয়ার ছেলে বদরুল মিয়া বাদী হয়ে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ৬ নং আমল আদালত মৌলভীবাজারে ঘঠনার সঙ্গে জড়িত ৯ জনের বিরুদ্ধে সি. আর মামলা নং-৩৭/২০২১ (জুড়ী) দায়ের করেন। ধারাঃ ৩২৩/৩২৪/৩২৫/ ৩০৭/৩২৬/৪২৭/৩৫৪/৩৭৯/৫০৬ (২)/৩৪ দন্ডবিধি।

অভিযুক্ত আসামী গন হলেন,  গেন্দু মিয়া (৫০), পিতা মৃত ওয়াহিদ আলী, সাং চম্পকলতা,  লতিফ মিয়া (৫২), পিতা মৃত রইছ আলী মিয়া, শিমুল মিয়া (২২), পিতা লতিফ মিয়া উভয় সাং কালীনগর, ইমন মিয়া (২৫) পিতা গেন্দু মিয়া,  লিমন মিয়া (২২) পিতা গেন্দু মিয়া, উভয় সাং চম্পকলতা, এবাদুল মিয়া (২৫) পিতা মৃত গোলাপ মিয়া সাং কালীনগর, ইদ্রিছ মিয়া (৫০) পিতা মৃত কটু মিয়া, শাদত মিয়া (৪৫), পিতা মৃত আম্বর মিয়া, ও আজমল আলী (৪৮)  পিতা মৃত আম্বর আলী উভয় সাং ভোগতেরা, সর্ব থানা জুড়ী, মৌলভীবাজার। 

মামলা সূত্রে জানা যায়, বিবাদী পরস্পর আত্নীয় বটে। দীর্ঘ দিন যাবত বিবাদীগনের সহিত বাদী বদরুল মিয়ার জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিলো। ঘঠনার তারিখ ও সময়ে বিবাদীগন দলবদ্ধ হয়ে, পূর্বপরিকল্পিত ভাবে বাদীর বসত বাড়ী লগ্ন উত্তরের বাদীর মৌরসীসূত্রে প্রাপ্ত মালিকানাধীন ভূমি জোরপূর্বক দখল করিতে চাইলে বাদী বদরুল মিয়া বিবাদীদের বাঁধা নিষেধ করিলে আসামীগন ক্ষিপ্ত হয়ে আকষ্মিক ভাবে দা, লাঠি-সোঁটা, রডসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে অতর্কিত ভাবে হামলা চালিয়ে এলোপাতাড়ি মারধর, ও কুপিয়ে জখম করে। 

বিবাদীদের এলোপাতাড়ি দায়ের কুপে বদরুল মিয়ার কপালের উপরি ভাগ কেটে ৭ টি সেলাই লাগে, এছাড়া শরীরের বিভিন্ন স্থানে লিলাফুলা জখম হয়। 

আসামী লিমন মিয়া ও শিমুল মিয়া বাদী বদরুল মিয়ার স্ত্রীকে উপর্যুপরি লাথি মারতে মারতে মাটিতে ফেলে গলায় টিপনি মেরে শ্বাসরুদ্ধ করতঃ প্রানে হত্যার চেষ্টা করে এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে লাঠি দ্ধারা আঘাত করিয়া জখম করে এবং পরিধানের কাপড় ধরে টানা হেছড়া করতঃ শ্লীলতাহানি ঘঠায়। 

বিবাদী ইমন মিয়া দা দিয়ে বাদীর মা সোনাবান বিবি (৭০) কে প্রাণে হত্যার লক্ষ্য মাথার উপর কুপ দিলে লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে মামলার ২নং স্বাক্ষীর কপালে কুপ লাগলে সেখানে ২ টি সেলাই লাগে। 

সরেজমিনে জানা যায়, ঘঠনার দিন প্রতিপক্ষের হামলায় আহতদের তাৎক্ষণিক জুড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলে সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয় পরবর্তীতে ঐদিন রাতেই তাদের অবস্থা আশংকা জনক হওয়ায় মৌলভীবাজার ২৫০ সয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে, জুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ সঞ্জয় চক্রবর্তী জানান, এ বিষয়ে ভিকটিম ঘঠনার পরপরই থানায় এসে অবগত করেন এবং তাদেরকে জরুরী চিকিৎসা নিয়ে থানায় অভিযোগ করতে বলি। বাদী বদরুল ইসলামের অভিযোগ পেয়েছি। পুলিশ এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনে তৎপর রয়েছে। 

Share.

Comments are closed.